Home / তথ্যপ্রযুক্তি / গবেষনা পত্র রেফারেন্স ম্যানেজার

গবেষনা পত্র রেফারেন্স ম্যানেজার

শত শত সায়েন্টিফিক পেপার পড়ে সেগুলো থেকে টুকেটাকে নোট করে, তারপর গুছিয়ে গাছিয়ে একটা পেপার লিখতে হয়। একাজে সাহায্য করতে পারে এমন একটা সফটওয়্যার যেটা নীচের দরকারী কাজগুলো করতে পারবে।

রিসার্চ পেপার ম্যানেজমেন্টের দরকারী কাজ
১। পেপার খুঁজে বের করতে সাহায্য করবে
২। পেপারের সফটকপি সেভ করে রাখবে
৩। পেপারের উপর নোট টুকে রাখতে সাহায্য করবে
৪। বিবলিওগ্রাফিক লিস্ট তৈরী করতে সাহায্য করবে, ল্যাটেক্স এবং ওয়ার্ডের জন্য
৫। বিভিন্ন ফরমেট অনুযায়ী রেফারেনস তৈরী করে দেবে

একাজের জন্য কয়েকটা কমাশিয়াল সফটওয়্যার –
কমাশির্য়াল সমাধান
১। প্রো-সাইট
২। রেফারেনস ম্যানেজার
৩। এন্ড নোট
৪। রেফওর্য়াকস

এদের মধ্যে এন্ড নোট সম্ভবত দরকারী পাঁচটি কাজই করতে পারে। রেফওর্য়াকস পারে কেবল বিবলিওগ্রাফিক লিস্ট তৈরী করতে আর বিভিন্ন রেফারেনস তৈরী করতে। বাকি গুলো নোট টোকা ছাড়া অন্যান্য কাজ গুলো করতে পারে। বিভিন্ন জায়গা থেকে একাজের জন্য ফ্রি যত সফটওয়্যার পাওয়া যায় তার তুলনামুলক একটা আলোচনা প্রকাশ করেছিলাম আমার ইংরেজী ব্লগে। সেখানে রয়েছে বিবলিওগ্রাফিক টুলের উপর এবং বিবলিওগ্রাফিক সার্চ ইঞ্জিনের উপর একটি লেখা। আপনাদের সুবির্ধাতে এখানে কয়েকটা টুলের নাম তুলে ধরলাম। পছন্দ মত বেছে নিন এবং আপনার অভিজ্ঞতা আমাদের সাথে শেয়ার করুন।

ফ্রি সমাধান
১। জ্যাব রেফ
২। বিব ডেস্ক (শুধু ম্যাক সিস্টেমের জন্য)
৩। পি বিব
৪। পিব্লিওগ্রাফার
৫। হাইপার বিবটেক্স (মূলত কর্মাশিয়াল আরেকটি সফটওয়্যারের সাথে ব্যবহারের জন্য)

লক্ষ্য করুন রেফারেনস ম্যানেজারের কোনটাই খুব ভালো রিসার্চ পেপার খোঁজার সুবিধা দেয় না। তাই রিসার্চ পেপার খোঁজার জন্য নিচের সাইট গুলি ব্যবহার করতে পারেন।

রিসার্চ পেপার খোঁজার জন্য
ক। গুগল স্কলার
খ। এইগেওন (খোঁজার পাশাপাশি ওয়েবভিত্তিক রেফারেনস ম্যানেজের ব্যবস্থা আছে।)
গ। বিব সোনোমী
ঘ। অটো বিব
ঙ। ইনজেন্টা কানেক্ট
চ। সাইট সিয়ার
ছ। আই ত্রিপল ই এক্সপ্লোর

এগুলোর বেশীর ভাগই আমি এখনও ব্যবহার করিনি। তাই কেউ এর কোনটা ব্যবহার করে থাকলে আমাকে ছোট্ট একটি মন্তব্যের তীর ছুড়তে ভুলবেনা। মন্তব্যের তীরে বিদ্ধ হলেই বরং আমার কষ্ট করে এই লেখা তুলে ধরা সার্থক হবে।

About S M Mahbub Murshed

Check Also

ইন্টারনেট: এক বিদ্যুত খেকো দানব

২০০৬ সালের শুরুর দিকে ফেসবুক এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল প্রায় ১০ মিলিয়ন। তখন ৪০ বাই ৬০ …

ফেসবুক কমেন্ট


  1. ধন্যবাদ চমৎকার একটি বিষয়কে উপস্থাপন করার জন্য।

    যারা থিসিস পেপাল লিখেন (বিজ্ঞানী থেকে শুরু করে অনার্স এর প্রোজেক্টের কাজ পর্যন্ত) তাদের জন্য এই ধরনের সিস্টেম খুব সাহায্য করে। পূর্বে এই কাজটি করার জন্য অফিসের সেক্রেটারি কিংবা ছাত্ররা সাহায্য করতো্। আজ থেকে ১৫ বছর আগে প্রথম যখন আমি গবেষনাপত্র লিখা শুরু করলাম। তখন মনে আছে আমার বস ও আমি মিলে পেপার লিখছিলাম। গবেষনাপত্রটি তৈরী শেষ হলে আমার উপর দায়িত্ব দিলেন রেফারেন্সগুলি মিলিয়ে নেয়া। প্রথমবার তৈরী করার পর, দ্বিতীয়বার যখন আবার চেক করতে গেলাম তখন দেখি ভুলে ভরা। কয়েকদিন বিনিদ্র কাজ করতে হল শুধু মাত্র রেফারেন্সগুলি চেক করা। সেই দিন শেষ হয়েছে এখন সফটওয়্যারই সেই কাজ সুন্দর করে দেয়।

    আমি ব্যাক্তিগতভাবে ইন্ডনোট (End Note) ব্যবহার করি। গত কয়েকবছর ধরে ব্যবহার করতে করতে অভ্যাস্ত হয়ে গেছি।

    নিম্নের সাইটে সব সফটগুলির একটি তুলনামূলক চিত্র পাওয়া যাবে।

    http://en.wikipedia.org/wiki/Comparison_of_reference_management_software

    ধন্যবাদ মুর্শেদ ভাইকে চমৎকার একটি বিষয় তুলে ধরার জন্য।

    ড. মশিউর

  2. End note is a nice software. Do you have any idea how much it will cost to get personal end note licence? if you have the price quote, please let me know.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।