ইন্তেখাব মাহমুদ ::: সিটিসেল

সিটিসেল কোম্পানী হচ্ছে বাংলাদেশের মোবাইল ফোনের অগ্রদূত। এরাই সর্বপ্রথম বাংলাদেশে চালু করেছিলো মোবাইল ফোন নামক ছোট্ট কথা বলার যন্ত্রের। মোবাইল ফোন ব্যবহারে সিটিসেলের হাত ধরে বাংলাদেশ গুটি গুটি পায়ে এগিয়ে গেলেও সেই মূহুর্তে টেলি-যোগাযোগ ব্যবস্থার কাঠামোর উন্নতিকরণ ক্ষেত্রে এই কোম্পানীর তেমন কোন পদক্ষেপ ছিলো না। কিন্ত্ত দেরিতে হলেও এই কোম্পানী আস্তে আস্তে এগিয়ে যায় অনলাইনের বিশাল রাজ্যের দিকে। প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে ২০০৫ সালে শুরু হয় ইমেইল আদান প্রদানের সুবিধা। সেই সময় কর্পোরেট গ্রাহক থেকে প্রচুর সাড়া পাওয়া যায়। অল্প কিছুদিনের মধ্যে তারাও ছাড়তে যাচ্ছে ইন্টারনেট সুবিধা। জানা গেছে, প্রতি কেবি -তে এর চার্জ ০.০২৫ টাকা + ভ্যাট হতে পারে এবং এই ইন্টারনেট সুবিধা পোস্ট পেইড এবং প্রিপেইড উভয় গ্রাহকই গ্রহন করতে পারবেন।

সিটিসেলের মার্কেটিং প্রধান ইন্তেখাব মাহমুদের সাক্ষাৎকার:

আসিফ ইকবালসিটিসেল ইন্টারনেট সুবিধা প্রদানের জন্য কি প্রযুক্তি ব্যবহার করছে?
– সিটিসেল যেহেতু সিডিএমএ সার্ভিস প্রদান করে তাই এতে ব্যবহার করা হয়েছে ১এক্স ইভিডিও। সিডিএমএ প্রযুক্তির ক্ষেত্রে বিশ্বে এটি যথেষ্ট জনপ্রিয় একটি প্রযুক্তি। এতে সেকেন্ডে ১২০ কেবি পাওয়া যাবে।
আপনাদের মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট সুবিধা কবে থেকে পাওয়া যাবে?
– শীঘ্রই। বর্তমানে বাছাইকৃত কিছু কর্পোরেট গ্রাহক এই সুবিধা পাচ্ছেন। আর সাড়া বাংলাদেশে এই ইন্টারনেট চালু হতে এক থেকে দুই মাসের মতো লাগতে পারে।
প্রযুক্তির এই অগ্রগতিতে ডিজিটাল বৈষম্য কি প্রকট আকার ধারন করতে পারে না?
– অবশ্যই না। দিনে দিনে প্রযুক্তি যেভাবে ছড়াচ্ছে ঠিক একই ভাবে এর দামও স্বাভাবিক পর্যায়ে চলে আসছে। যে কারনে একদিনকার প্রতি মিনিটে ১৫ টাকার কল রেট এখন ৩ টাকায় এসে দাঁড়িয়েছে। এটা ঠিক যে প্রথম দিকে অতি সাধারন জনগোষ্ঠী শুরুর দিকের আনন্দটা সাথে সাথে উপভোগ করার সুযোগ পায় না; কিন্তু কেউ আগে পাবে কেউ পরে পাবে এটা প্রাচীন কাল থেকেই হয়ে আসছে!
সিডিএমএ হ্যান্ড সেটে ইন্টারনেট চালু করতে হবে। গ্রাহকরা স্বাভাবিকভাবেই এর সেটআপে সমস্যায় পড়তে পারে। এর জন্য আপনাদের কোন পদক্ষেপ আছে কি?
– আমাদের কাষ্টোমার সার্ভিসগুলো এই ক্ষেত্রে সুবিধা দেবে। যে কোন কাষ্টোমার সার্ভিস সেন্টারে গেলেই সেখানকার কর্মরত ব্যক্তিরা ইভিডিও সেটআপে সাহায্য করবে এবং অবশ্যই এটি একটি ফ্রি সার্ভিস।
ভবিষ্যতে সিটিসেলের আইএসপি ব্যবসায় তাদের ব্যবসা সম্প্রসারিত করতে পারে, এমন কোন সম্ভাবনা আছে কি?
– এটা এই মূহুর্তে সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে এই নিয়ে চিন্তা ভাবনা থাকতেই পারে।

ফেসবুক কমেন্ট


One Comment

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

*