বাসযোগ্য পৃথিবীর লক্ষ্যে সবুজ বিপ্লব।

{mosimage}

 

গাছ লাগানপরিবেশ বাঁচান। খুব সনাতন একটি স্লোগান হলেও এর গুরুত্ব বর্তমানে অনেক বেশি বেড়েগেছে। কারণ বর্তমান বিশ্বে প্রতিনিয়ত আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটছে। বিশ্বের প্রতিটিদেশেই স্বাভাবিক  আবহাওয়া ও জলবায়ু পরিবর্তন ঘটায় কমেযাচ্ছে শীতকালের স্থায়ীত্ববাড়ছে ভূমি ও পাহাড় ধসঘন ঘন ভূমিকম্প। এছাড়া খরাবন্যাটর্নেডোসাইক্লোনের মাত্রা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছেএবং ঘটছে পরিবেশ বিপর্যয়। পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে বিশ্বে মরুময়তা বৃদ্ধিপাচ্ছে। বিশ্বউষ্ণায়নের মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে বাংলাদেশে। উষ্ণায়নের ফলেসমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়বে এবং বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চল তলিয়ে যাবে পানির নিচে। সমুদ্রেরলবণাক্ত পানি দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে মাটিতে লবণাক্ততার পরিমাণ বৃদ্ধি করবে।ফলে জৈব বৈচিত্র হুমকীর সম্মুখিন হবেফসল উৎপাদন মারাত্মক ভাবে হ্রাস পাবে এবং খাবার পানি সংকট হবে তীব্র।জনভারে বিপর্যস্ত এদেশ মুখোমুখি হবে আরও কঠিন সংকটের। এখন এই অবস্থায় পরিবেশবান্ধবগাছই পারে আমাদের এ সুন্দর পৃথিবীর জীবকূলকে বাঁচাতে।  শুধু পরিবেশ আর জলবায়ুই নয়প্রাণী-উদ্ভিদের সম্পর্ক ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থায় রাখতে হলেবিদেশি গাছ না লাগিয়ে দেশি গাছ রোপণে আমাদের এখনই সচেতন হতে হবে। বাসযোগ্য পৃথিবীকে গাছে গাছে সবুজ করেদিতে সংঘটিত হয়েছে কতিপয় উদ্যমী তরুণ ছেলেযাঁরা বাসযোগ্য পৃথিবীর জন্য সবুজ গাছ এ স্লোগানটিকে সামনে রেখে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে গড়ে তুলল সবুজ বিপ্লবনামক স্বেচ্ছাসেবী পরিবেশবাদী সংঘটনটি। বাংলাদেশের প্রথমঅনলাইন উদ্ভিদ তথ্য ভান্ডারের  সংকলক মো: সালাহ উদ্দিন  এর  উদ্যেগে সংঘটিত সবুজ বিপ্লবসংঘটনটি কিছুদিন আগে প্রথমবারের মত বৃক্ষরোপণ অভিযান ২০১১ পালন করে। অভযানকর্মসূচীর মধ্যে ছিল বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ অভিযান। নোয়াখালিজেলার সোনাইমুড়ি থানাধীন আমকিজয়াগজুনদপুরবারকোটথানারহাট ও কেগনা গ্রামে বিনামূল্যে চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপণঅভিযান চালায়। উক্ত অভিযানে সোনাইমুড়ি থানাধীন ১নং জয়াগ ইউনিয়নের নবনির্বাচিতচেয়ারম্যান ও ৮নং ওয়ার্ডের  মেম্বার উপস্থিত ছিলেন। তারা সবুজ বিপ্লবের এমহতী কাজে অংশগ্রহণ করতে পেরে খুবই আনন্দিত এবং এ মহতী কাজের ধারণাকে থানাধীন অন্যান্যজনপ্রতিনিধীদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া ও সবুজ বিপ্লব সংঘটনকে যে কোন ধরণের সহযোগিতাকরার আশ্বাস দেন। বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ অভিযান ২০১১ এর সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সবুজ বিপ্লবের একনিষ্ঠ্যসদস্য শাহ আলমসুজনফরহাদরাখিবসবুজপলাশশীল্পিসুমন,তুহিন ও সোহেল সহ আরো অনেকে।

শুধু নোয়াখালীনয়দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এ বৃক্ষরোপণঅভিযান ছড়িয়ে দিতে হবে। যে কেউ চাইলে নিজ নিজ এলাকায় স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়েরউদ্যমী বন্ধুরা মিলে গড়ে তুলতে পারেন সবুজ বিপ্লবের শাখা।

 

আসুন আমরা সবাইসবুজ বিপ্লবের এ মহতী কাজে অংশ নিয়ে গাছে গাছে সবুজ করে তুলি এ বসুন্ধরা এবংদূষণমুক্ত চারপাশের পরিবেশ। আমরা সবাই মিলে সবুজ বিপ্লবের লক্ষ্যকে সফল করেপরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি সুন্দরদূষণমুক্ত বাসযোগ্য পৃথিবী উপহার দেই।

 

তথ্যসূত্র:  সমকাল: কাল স্রোত, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১১  

 

{mosimage}

 

গাছ লাগানপরিবেশ বাঁচান। খুব সনাতন একটি স্লোগান হলেও এর গুরুত্ব বর্তমানে অনেক বেশি বেড়েগেছে। কারণ বর্তমান বিশ্বে প্রতিনিয়ত আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটছে। বিশ্বের প্রতিটিদেশেই স্বাভাবিক  আবহাওয়া ও জলবায়ু পরিবর্তন ঘটায় কমেযাচ্ছে শীতকালের স্থায়ীত্ববাড়ছে ভূমি ও পাহাড় ধসঘন ঘন ভূমিকম্প। এছাড়া খরাবন্যাটর্নেডোসাইক্লোনের মাত্রা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছেএবং ঘটছে পরিবেশ বিপর্যয়। পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে বিশ্বে মরুময়তা বৃদ্ধিপাচ্ছে। বিশ্বউষ্ণায়নের মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে বাংলাদেশে। উষ্ণায়নের ফলেসমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়বে এবং বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চল তলিয়ে যাবে পানির নিচে। সমুদ্রেরলবণাক্ত পানি দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে মাটিতে লবণাক্ততার পরিমাণ বৃদ্ধি করবে।ফলে জৈব বৈচিত্র হুমকীর সম্মুখিন হবেফসল উৎপাদন মারাত্মক ভাবে হ্রাস পাবে এবং খাবার পানি সংকট হবে তীব্র।জনভারে বিপর্যস্ত এদেশ মুখোমুখি হবে আরও কঠিন সংকটের। এখন এই অবস্থায় পরিবেশবান্ধবগাছই পারে আমাদের এ সুন্দর পৃথিবীর জীবকূলকে বাঁচাতে।  শুধু পরিবেশ আর জলবায়ুই নয়প্রাণী-উদ্ভিদের সম্পর্ক ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থায় রাখতে হলেবিদেশি গাছ না লাগিয়ে দেশি গাছ রোপণে আমাদের এখনই সচেতন হতে হবে। বাসযোগ্য পৃথিবীকে গাছে গাছে সবুজ করেদিতে সংঘটিত হয়েছে কতিপয় উদ্যমী তরুণ ছেলেযাঁরা বাসযোগ্য পৃথিবীর জন্য সবুজ গাছ এ স্লোগানটিকে সামনে রেখে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে গড়ে তুলল সবুজ বিপ্লবনামক স্বেচ্ছাসেবী পরিবেশবাদী সংঘটনটি। বাংলাদেশের প্রথমঅনলাইন উদ্ভিদ তথ্য ভান্ডারের  সংকলক মো: সালাহ উদ্দিন  এর  উদ্যেগে সংঘটিত সবুজ বিপ্লবসংঘটনটি কিছুদিন আগে প্রথমবারের মত বৃক্ষরোপণ অভিযান ২০১১ পালন করে। অভযানকর্মসূচীর মধ্যে ছিল বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ অভিযান। নোয়াখালিজেলার সোনাইমুড়ি থানাধীন আমকিজয়াগজুনদপুরবারকোটথানারহাট ও কেগনা গ্রামে বিনামূল্যে চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপণঅভিযান চালায়। উক্ত অভিযানে সোনাইমুড়ি থানাধীন ১নং জয়াগ ইউনিয়নের নবনির্বাচিতচেয়ারম্যান ও ৮নং ওয়ার্ডের  মেম্বার উপস্থিত ছিলেন। তারা সবুজ বিপ্লবের এমহতী কাজে অংশগ্রহণ করতে পেরে খুবই আনন্দিত এবং এ মহতী কাজের ধারণাকে থানাধীন অন্যান্যজনপ্রতিনিধীদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া ও সবুজ বিপ্লব সংঘটনকে যে কোন ধরণের সহযোগিতাকরার আশ্বাস দেন। বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ অভিযান ২০১১ এর সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সবুজ বিপ্লবের একনিষ্ঠ্যসদস্য শাহ আলমসুজনফরহাদরাখিবসবুজপলাশশীল্পিসুমন,তুহিন ও সোহেল সহ আরো অনেকে।

শুধু নোয়াখালীনয়দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এ বৃক্ষরোপণঅভিযান ছড়িয়ে দিতে হবে। যে কেউ চাইলে নিজ নিজ এলাকায় স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়েরউদ্যমী বন্ধুরা মিলে গড়ে তুলতে পারেন সবুজ বিপ্লবের শাখা।

 

আসুন আমরা সবাইসবুজ বিপ্লবের এ মহতী কাজে অংশ নিয়ে গাছে গাছে সবুজ করে তুলি এ বসুন্ধরা এবংদূষণমুক্ত চারপাশের পরিবেশ। আমরা সবাই মিলে সবুজ বিপ্লবের লক্ষ্যকে সফল করেপরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি সুন্দরদূষণমুক্ত বাসযোগ্য পৃথিবী উপহার দেই।

 

তথ্যসূত্র:  সমকাল: কাল স্রোত, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১১  

 

ফেসবুক কমেন্ট


One Comment

  1. আসলে আমাদের গাছ লাগানোর পাশাপাশি নিজেদের কেউ সচেতন হতে হবে।আমি গাছ লাগালাম আর একজন কেটেই যাবে এমন হলে মুশকিল । আমাদের সবাই কে একসাথে সচেতন হওয়া সবার আগে দরকার আমি মনে করি ,খালি একটা দল বা প্রতিষ্ঠান কাজ করলে হবে না ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

*